আঁধারকাব্য

গল্পের শুরুটা এরকম ছিল না।
চির অবাধ্য-দুর্বিনীত আজন্ম বিপ্লবী
উল্লাসী দমকে বেমালুম ভেজা স্বর-
দিগ্বিদিক রঙের বেখেয়ালী প্লাবনে
ছিল ছুটন্ত ফড়িঙয়ের ডানায় ভর।
কাজলী ছায়ায় বিষন্ন মায়ার সুর
বাঁশরীর মোহে ছিল শিকলের ডাক,
তবুও কেন অস্ফুটে নুয়ে গেলো-
উন্মাতাল পথের পাগল নাবিক।
মোড়ে মোড়ে যার বিজয় বিরাগ
সে আজ ভিখারীর বসনে সাঙ্গিক।
প্রণয়ের তোড়ে চেঙ্গিস খানও পর্যদুস্ত।
গল্পটা এরকম নাও হতে পারতো-
কালিতে কালিতে প্রগাঢ় মায়ায়
এক চিলতে সন্ধ্যা, মহাকাল হয়তো বুনতো।
বাক্সবন্দী রঙ্গিন খাম, ফুলেল মালা
হয়ে যেতো অম্লান স্মৃতির কোটর।
দীর্ঘশ্বাসী বোবা যে জড় বুক-
হতো অবাক প্রেমের সংলাপে মুখর।
এখন, ঝি ঝি পোকার পাকা নিবাস
কুহকী আলোর শঙ্খে আঁধারের ঘনবাস।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s